আবুল হোসেনকে আবার মন্ত্রী পদে চান এরশাদ

আবুল হোসেনকে আবার মন্ত্রী পদে চান এরশাদ

স্বাধীন কন্ঠ ডেস্কঃ সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনকে আবার মন্ত্রী পদে চেয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এই আশা প্রকাশ করেন সাবেক রাষ্ট্রপতি।

পদ্মা সেতুতে কথিত দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগ ওঠার পর মন্ত্রিত্ব থেকে সরে যান সৈয়দ আবুল হোসেন। দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগে কানাডার আদালতে মামলাও হয়।  গত সপ্তাহে কানাডার ওই আদালত পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগে করা মামলা খারিজ করে দেয়। আদালত এই অভিযোগকে গালগল্প বলে অভিহিত করে।

এর আগে ২০১২ সালে বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে পদ্মা সেতুতে অর্থায়নের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত ১২০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি বাতিল করে।

বিশ্বব্যাংকের অভিযোগের কারণে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনকে সর্বোচ্চ সমালোচনা ও বিতর্কের মুখে পড়তে হয়- এ কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, এতে একজন দক্ষ মন্ত্রীর ক্যারিয়ার নষ্ট হয়ে গেছে। বিশ্বব্যাংক, দেশীয় স্বার্থান্বেষী মহল ও কতিপয় মিডিয়ার উদ্দেশ্যমূলক ও পরিকল্পিত ভূমিকা পদ্মা সেতুর মতো একটি মেগা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত করেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাংলাদেশ।

আবুল হোসেনের মন্ত্রিত্ব পাওয়ার জন্য নিজের আশা প্রকাশ করতে গিযে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত বলেন, ‘যেহেতু ভুল তথ্য ও মিথ্যা অভিযোগে আবুল হোসেনকে মন্ত্রিত্ব হারাতে হয়েছে, তাকে বিনা দোষে দুর্নীতির অভিযোগ বইতে হয়েছে, তার ব্যক্তিগত ইমেজ ক্ষুণ্ণ হয়েছে, সেহেতু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবুল হোসেনের মন্ত্রিত্ব পুনর্বিবেচনায় নিয়ে তাকে রাজনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করবেন বলে আমার বিশ্বাস।’

Post Author: shadhinkantho

Leave a Reply