ফাইনাল খেলতে নিষিদ্ধ নগরে পৌছালেন ‘সাহসী’ বিজয়

পাকিস্তান সুপার লিগের ফাইনাল খেলতে লাহোর পৌঁছেছেন বাংলাদেশি ওপেনার এনামুল হক বিজয়। শনিবার তিনি দুপুরে পাকিস্তান এয়ার লাইন্সে একটি ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন। খেলবেন কোয়াটার হয়ে। রবিবার রাতের ফাইনালে মুখোমুখি হবে পেশোয়ার ও কোয়েটা। পেশোয়ারের  হয়ে সাকিব ও তামিম  এবং কোয়াটার পক্ষে প্রথম পর্বের ম্যাচগুলো খেলেন মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ। কিন্তু শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য দলের সঙ্গে যোগ দিতে ঢাকা ফিরে আসেন তারা।

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের উপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে পাকিস্তানে বড় কোনো দল যায়নি। অনেক চেষ্টা করে জিম্বাবুয়েকে সেখানে নিলেও গত বছর দ্বিতীয় ওয়ানডে চলার সময় লাহোর স্টেডিয়ামের বাইরে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

বাংলাদেশ দলকে বারবার সেখানে নেওয়ার চেস্টা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু বাংলাদেশ  ক্রিকেট বোর্ড দল পাঠায়নি শেষ পর্যন্ত। এ নিয়ে বিসিবির উপর বেশ নাখোশ ছিল পিসিবি। বিপিএলে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের আসা বন্ধও করে দেয় পিসিবি। যদিও পরে সেটা তুলে নেয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

লাহোর ফাইনাল খেলতে বিদেশী খেলোয়াড়রা অস্বীকৃতি জানানোর ফলে বিপাকে পড়ে আয়োজকরা। যদিও লাহোর ফাইনাল খেললে বিদেশী খেলোয়াড়দের পৃথকভাবে ৫০ হাজার ডলার দেওয়ার ঘোষণা দেয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

সেই ঘোষণায় অনেকের মন না গললেও লোভনীয় প্রস্তাবটি না করতে পারেননি বাংলাদেশি ওপেনার এনামুল হক বিজয়। প্রস্তাব পাওয়ার পরই বিসিবির কাছে অনুরোধ করেন ছাড়পত্র দিতে। সেখানে নিজ দায়িত্বে যাওয়ার এবং খেলার শর্তে অনাপত্তিপত্রও দেয় বিসিবি। ২০১৫ সালের পর থেকে জাতীয় দলের বাইরে থাকা বিজয় তাতেই মহা খুশি। প্রচুর অর্থের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজেকে আরেকবার উপস্থান করার সুযোগ পাচ্ছেন তিনি।

Post Author: Pritom Sagor

Leave a Reply