শেখ হাসিনার নামে রিসার্চ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার দাবি

স্বাধীন কন্ঠ ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি রিসার্চ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সরকারি দলের সংসদ সদস্য খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার উন্নয়ন আজ বিশ্বে মডেলে পরিণত হয়েছে। আন্তর্জাতিক বিশ্বের কাছ থেকে শেখ হাসিনা ২৭টি ক্যাটাগরিতে সুনাম নিয়ে এসেছেন। তাকে নিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গবেষণা হচ্ছে। বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নামে রিসার্চ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হলে বিদেশিরা সেখানে গিয়ে তাকে জানতে পারবে। তাকে নিয়ে তারা গবেষণা করতে পারবে। দেশি-বিদেশি গবেষকরা শেখ হাসিনাকে জানতে বাংলাদেশে এসে যদি পর্যাপ্ত তথ্য-উপাত্ত না পায় তাহলে সে লজ্জা হবে আমাদের।’

বুধবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে তিনি এই দাবি জানান।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি তার ভাষণে সরকারের যে উন্নয়নের কথা বলেছেন, তা নিয়ে সরকারের সমালোচকরাও সমালোচনা করতে পারেননি। রাষ্ট্রপতি যে উন্নয়নের কথা বলেছেন, তা দেশের বাস্তবতা। আর এই উন্নয়নে নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল আখ্যায়িত করে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ বলেন, ‘কেবল জাতীয়ভাবে নয়, আজকে আন্তর্জাতিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে বিএনপি একটি সন্ত্রাসী ও সাম্প্রদায়িক দল। গত ২৫ জানুয়ারি কানাডার ফেডারেল কোর্ট বলেছে বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল। গতকাল (২১ ফেব্রুয়ারি) ফেডারেল কোর্ট থেকে তা প্রকাশ করা হয়েছে।’

পদ্মা সেতুর দুর্নীতির মামলা কানাডার আদালতে খারিজ হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতু নিয়ে কথিত দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর খালেদা জিয়া বলেছিলেন, তিনি ক্ষমতায় গেলে পদ্মা সেতুর দুর্নীতির বিচার করবেন আজকে তিনি কার বিচার করবেন? খালেদা জিয়ার বিচার এখন কে করবে?’

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, ‘দেশের মানুষ আজ পেট ভরে খেতে পারছে। এটা দেখে খালেদা জিয়া ধুঁকে-ধুঁকে রাজনৈতিকভাবে মৃত্যুবরণ করছে। খালেদা জিয়ার রাজনীতি করার কোনো সুযোগ নেই। বাংলাদেশের মানুষ এ ধরনের ব্যর্থ, সন্ত্রাসী ও সাম্প্রদায়িক নেতৃত্বকে গ্রহণ করবে না।’

Post Author: shadhinkantho

Leave a Reply